?> টাকা কি ?টাকার ছবি ডাউনলোড করে দেখে নিন ?Best pic - 2021 ! - Tech News Trend

টাকা কি ?টাকার ছবি ডাউনলোড করে দেখে নিন ?Best pic – 2021 !

টাকা হল বাংলাদেশের  অফিশিয়াল কারেন্সি ।  বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত হয়ে  থাকে । 

 

 

টাকা আমাদের জীবনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস ।  অনেকে এটাকে অনর্থক বলে  আখ্যা দিলেও Taka কিন্তু সকলের জীবনের জন্য খুবই জরুরী ।  আজকে আপনি পৃথিবীতে বেঁচে রয়েছেন কেবলমাত্র  অর্থের জোরে । সুতরাং আপনার কাছে এই অর্থ নেই তার মানে আপনার    অনাথ । 

 

 কারণ এই অর্থ অর্থাৎ Takaমানুষকে পৃথিবীকে বাঁচিয়ে রাখে ,  আমরা আমাদের ভরণপোষণের চাহিদা পূরণ করে এই অর্থ অর্থাৎ টাকা দিয়ে । 

 

সে কারণে কখনোই টাকা কে হেও প্রতিপন্ন করা উচিত নয় । 

 

টাকা কি এবং কেন এটি ব্যবহার করা হয় ?

 

 আধুনিক বাংলাদেশের সবচেয়ে বহুল প্রচলিত একটি কারেন্সি হলো Taka । দামের দিক দিয়ে সমগ্র পৃথিবীর ভেতরে 86 তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশের এই কারেন্সি । 

 

চলুন Takaসম্পর্কে আরও বিস্তারিত কিছু জেনে নেওয়া যাক ! 

 

টাকার ছবি ডাউনলোড করে দেখে নিন 

বর্তমানে বাংলাদেশে যে কয়েক ধরনের Takaর নোট ব্যবহার করা হয় তার মধ্যে রয়েছে  ৳২, ৳৫, ৳১০, ৳২০, ৳৫০, ৳১০০, ৳২০০, ৳৫০০ ও ৳১০০০ ।

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের একটি তথ্য সূত্র অনুসারে জানা যায় এর ভিতরে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় 50, 100 ,  10  টাকার নোট গুলো । 

 

নিচে গুলোর ছবি দেওয়া হলঃ

টাকা

 

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ উপরের ছবিগুলো দেখানো হয়েছে , এগুলো মূলত বাংলাদেশেরTaka এর সচিত্র ছবি, কেবলমাত্র জ্ঞানমূলক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয়েছে । 

 

টাকা লেনদেনের চুক্তিপত্র নমুনা

 

Taka ধারের চুক্তিপত্র নমুনা  খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় ।  সাধারণত আমরা যখন একজনের কাছ থেকে Taka ধার নেই তখন আর টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে আমাদের এই চুক্তিপত্রটি সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন পড়ে । Taka লেনদেনের চুক্তিপত্র নমুনা আপনি যদি সংগ্রহ করতে চান তাহলে নিকটস্থ  মহুরি  অফিসে গিয়ে কালেক্ট করতে পারেন । 

 এখন আপনার মনে হয় তা প্রশ্ন আসতে পারে Taka লেনদেনের চুক্তিপত্র নমুনা কেন এত গুরুত্বপূর্ণ?

 

 সাধারণত আমরা যখন আর্থিক লেনদেন করে থাকি তখন Taka লেনদেনের চুক্তি পত্র নমুনা সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন পড়ে । কেননা একজন যখন আমাদের কাছ থেকে টাকা ধার নেয় তখন ,  সে যে Taka ধার নিয়েছে তার একটি দলিল আমাদের কাছে থেকে যায় এই টাকা লেনদেনের চুক্তিপত্র নমুনা এর মাধ্যমে । 

 

সুতরাংTaka লেনদেনের চুক্তিপত্র নমুনা কেন এত গুরুত্বপূর্ণ এটা নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছেন । আপনি যদিTaka লেনদেনের চুক্তিপত্র নমুনা একটি পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করতে চান তাহলে এই লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে ।  এখানে ক্লিক করুন ! 

 

বাংলাদেশী টাকা

বাংলাদেশী Taka হল সবচেয়ে বহুল ব্যবহৃত এক ধরনের কারেন্সি যেটি দেশের 16 কোটি মানুষ ব্যবহার করে থাকে । প্রতিদিন বাংলাদেশী টাকা যে কতবার লেনদেন করা হয় সে সম্পর্কেও হয়ত কোন হিসেব আপনার কাছে নেই  । বাংলাদেশী টাকা এর সম্পূর্ণ রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব ন্যস্ত করা থাকে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক বাংলাদেশ ব্যাংক এর ওপরে । বাংলাদেশ ব্যাংক বাংলাদেশী টাকা এর ব্যাপারে বেশ সচেতন । সর্বদা যেন মুদ্রাস্ফীতি পরিবর্তন না হয় সে চেষ্টায় প্রচেষ্ট  তারা । 

 

এবং তার পাশাপাশি বাংলাদেশী Taka যেন কোনোভাবেই বাইরের দেশে পাচার না হতে পারে সে বিষয়েও  বেশ সচেতনতা অবলম্বন করতে হয় বাংলাদেশ ব্যাংকের । 

 

বাংলাদেশী Taka  বাংলাদেশের মানুষের জীবনের প্রতিটি অধ্যায়ের মিশে রয়েছে । বাংলাদেশের Taka আছে জন্যই বাংলাদেশের মানুষ তাদের আর্থিক লেনদেন নিশ্চিত করতে পারেন । 

 

200 টাকার নোট

2020 সালে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো লঞ্চ করা হয় 200 টাকার নোট । সে কারণে বরাবরের মতো এখনো অব্দি 200 Taka এর নোট বাংলাদেশের সবচেয়ে ট্রেন্ডিং লিস্টে  অন্যতম একটি বিষয় । 

মূলত মুজিব শতবর্ষ কে সামনে রেখে 200 Taka এর নোট ছাপানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিল যে টির পুরো দায়িত্ব অর্পণ করা ছিল বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক বাংলাদেশ ব্যাংক এর ওপরে । 

 

 নিচে 200 Taka এর নোটের একটি ছবি দেওয়া হল ! 

 

বাংলাদেশ ব্যাংকের এই নোটটি মূলত একটি ইউনিক নোট বলা চলে । কেননা এখানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দুইটি ছবি  সংযোজন  করা হয়েছে । যার ভেতরে এক পাশের ছবিতে আমরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কোট করে থাকতে দেখতে পাই । এবং অপর পাশে দেখা যায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি ব্লেজার গায়ে টাই শার্ট পরে রয়েছেন । সাথে রয়েছে চোখে একটি মোটরের চশমা এবং একটি উজ্জ্বল হাসি । 

 

ধারণা করা হয়  এই ছবিটি মূলত  1950 থেকে 1960 সালের মধ্যে ধারণ করা হয়েছিল । 

 

1000 টাকার নোট 

বাংলাদেশ 2008 সাল থেকে 1000 টাকার নোট চালু করা হয়েছিল । এবং এখনো ওকে 1000 Taka এর নোট বাংলাদেশের চলছে। বলতো বড় ধরনের আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়ে থাকে 1000 টাকার নোট । 

 

নিচে 1000Takaর নোটের একটি ছবি দেওয়া হল ! 

1000 Takaএই নোট একটিতে আমরা যে ভবনটির ছবি দেখতে পাচ্ছি এটি মূলত আহসান মঞ্জিল যেটি পুরান ঢাকায় অবস্থিত । এটি দেশের একটি প্রসিদ্ধ ভবন । বাংলাদেশ 1000 Taka লেনদেন খুব একটা না থাকলেও বড় ধরনের কোনো আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে 1000 টাকা সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়ে থাকে । বড় বড় শিল্প প্রতিষ্ঠান এবং ব্যাংকের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়ে থাকে 1000 টাকার নোট টি । অনেকে তো 1000 Taka নোট দেখা কে নিজেদের সৌভাগ্য বলে মনে করে । 

 

পোস্ট অফিসে টাকা রাখার নিয়ম

 

পোস্ট অফিসেTaka জমা রাখার নিয়ম খুব সোজা । এজন্য আপনাকে আপনার নিকটস্থ পোস্ট অফিসে গিয়ে  একটি ফরম ফিলাপ করতে হবে এবং অতঃপর নির্দিষ্ট পরিমাণে একটি Taka জমা রাখতে হবে । এবং বর্তমানে বাংলাদেশের পোস্ট অফিসের আইন অনুযায়ী আপনি যদি 1 লক্ষ Taka জমা রাখেন তাহলে সেই ক্ষেত্রে আপনি 50 Taka মুনাফা  পাবেন । তবে কেউ যদি মুনাফা গ্রহীতা অ্যাকাউন্ট খুলে না থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে পোস্ট অফিস থাকে মুনাফা প্রদান করে না । 

 

 সাধারণত পোস্ট অফিস এই Taka গুলো অন্য কাউকে ঋণ হিসেবে প্রদান করে থাকে । এবং সেই ঋণ থেকে তাদের লভ্যাংশ আসে তার একটি অংশ আপনার সাথে শেয়ার করে সেই ব্যাংক কর্তৃপক্ষ । 

 

তো আজকের আর্টিকেলটি এই পর্যন্তই । আশা করি আপনি আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ে উপকৃত হয়েছেন । যদি সত্যিই আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনি বিন্দুমাত্র উপকৃত হয়ে থাকেন তাহলে আপনাকে আমন্ত্রণ জানাবো আমাদের সাইটের কোন আর্টিকেল গুলি পড়ার জন্য । 

 

 আমরা প্রতিনিয়ত টেকনোলজি এবং লাইফস্টাইল বিষয়ক  আর্টিকেল শেয়ার করে থাকি যেগুলো আমাদের পাঠকদের প্রতিনিয়তঃ সাহায্য করে চলেছে ।